শিরোনাম :
‘ভূঞাপুর রিপোর্টার্স ইউনিটি’র নতুন কমিটি আত্মপ্রকাশ! ভূঞাপুরে মালা হত্যায় জড়িতদের ফাঁসির দাবিতে মানববন্ধন ভূঞাপুরে ৮৭০ পিস ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক! ভূঞাপুরে মর্মান্তিক মটরসাইকেল দুর্ঘটনায় নিহত ১, আহত ৩ ভূঞাপুরে উপ-প্রকৌশলী মিরাজুলের বিরুদ্ধে অনিয়ম, দুর্নীতি ও ঘুষের অভিযোগ ভূঞাপুরে ঐতিহ্যবাহী বাউল গানের আসর অনুষ্ঠিত “যখন ইচ্ছে তখন অফিসে আসবো”-ভূঞাপুর খাদ্য নিয়ন্ত্রক কর্মকর্তা নদী ভাঙ্গনে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের উন্মুক্ত তালিকা করলেন চেয়ারম্যান দিদারুল আলম খান মাহবুব ভূঞাপুরে মতিন সরকারের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ ভূঞাপুরে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে বনিক সমিতির মিলাদ-দোয়া ও কাঙ্গালীভোজ!

করোনার টিকা নিলেন খালেদা জিয়া

  • আপডেট টাইম : সোমবার, ১৯ জুলাই, ২০২১
  • ১৯৮ দেখেছেন

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া করোনা ভাইরাসের টিকা গ্রহণ করেছেন। সোমবার মহাখালীর শেখ রাসেল জাতীয় গ্যাস্ট্রোলিভার ইনস্টিটিউট অ্যান্ড হাসপাতালে বিকাল ৪টার দিকে খালেদা জিয়া টিকা নেন। এর আগে বিকাল ৩টা ৪৫ মিনিটে বিএনপি চেয়ারপারসন হাসপাতালে পৌঁছান। সে সময় বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সেখানে ছিলেন। অসুস্থতার কারণে খালেদা জিয়া গাড়ি থেকে নামেননি। চিকিৎসকদের পরামর্শে গাড়িতেই তাকে টিকা দেওয়া হয়।

খালেদা জিয়ার ব্যক্তিগত চিকিৎসক ও দলের ভাইস চেয়ারম্যান অধ্যাপক এ জেড এম জাহিদ হোসেন জানান, মডার্নার টিকা নিয়েছেন খালেদা জিয়া।

জাহিদ বলেন, ‘খালেদা জিয়া সত্যিকার অর্থে নিয়মকানুন মানা একজন নাগরিক। তিনি সাধারণ মানুষের কাতারে এসে টিকা নিয়েছেন।’

টিকা পরবর্তী কিছু জটিলতা দেখা যায়, সে বিষয়ে খালেদা জিয়ার জন্য সকলের কাছে দোয়া চেয়েছেন জাহিদ।
এদিকে টিকা নেয়ার পর দেশবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন বিএনপি চেয়ারপারসন।

টিকা নিয়ে পুনরায় সাড়ে চারটার দিকে গুলশানের বাসায় পৌঁছেন খালেদা জিয়া।

গত ৮ জুলাই সুরক্ষা ওয়েবসাইটে গিয়ে টিকার জন্য নিবন্ধন ফরম পূরণ করেন খালেদা জিয়া। নিবন্ধন ফরমে উল্লিখিত ফোনে এসএমএস করে সোমবার টিকা নেওয়ার তারিখ দেওয়া হয়।

উল্লেখ্য, করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৭ এপ্রিল রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে ভর্তি হন খালেদা জিয়া। সেখানে ৫৩ দিন চিকিৎসা শেষে গত ১৯ জুন রাতে গুলশানের বাসভবনে ফেরেন খালেদা জিয়া। এখনো বাসায় থেকেই চিকিৎসকের পরামর্শ নিচ্ছেন সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া।

২০১৮ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতির মামলায় আদালত তাকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেন। এরপর প্রথমে পুরান ঢাকার বিশেষ কারাগার ও পরে কারাবন্দি অবস্থায় বিএসএমইউয়ের হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন তিনি। ২০২০ সালের ৫ মার্চ করোনা সংক্রমণের মধ্যেই পরিবারের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বিদেশে না যাওয়াসহ বেশকিছু শর্তারোপ করে খালেদা জিয়াকে ৬ মাসের মুক্তি দেয়া হয়, যা পরে আরও ৬ মাস বৃদ্ধি করেছে সরকার।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো সংবাদ
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি