শিরোনাম :
‘জাতীয় দলের খেলোয়াড় রফিক’কে সংবর্ধনা প্রদান এলাকাবাসীর Ac Land Alaul Islam was replaced with praise and love ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কের মাদারীপুরের রাজৈরের বৌলগ্রামে ট্রাকের চাপায় দুই নারী নিহত সাতক্ষীরা ইয়ুথ ক্লাবের উদ্যোগে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি পালন কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা ইডি ও সি বি আই দ্বারা ভারতের জাতীয় কংগ্রেসের সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধী র হেনস্তা র বিরুদ্ধে রাস্তায় নেতৃত্ব।। ভূঞাপুরে আ.লীগ নেতার নগদ অর্থদণ্ড! ভূঞাপুরে এক ভন্ড কবিরাজকে ভ্রাম্যমাণ আদালতের জরিমানা! ভূঞাপুরে ৩১’শ পরিবারে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার বিতরণের শুভ উদ্বোধন! ভূঞাপুরে জমিও গৃহ প্রদান বিষয়ে উপজেলা প্রশাসনের প্রেস ব্রিফিং! উপজেলা চেয়ারম্যানকে হত্যার হুমকির অভিযোগ এমপি’র বিরুদ্ধে!

কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে পদ্মা নদীর পানিতে দক্ষিণ অঞ্চল প্লাবিত হওয়ার আশঙ্কা

  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ১৯ আগস্ট, ২০২১

কুষ্টিয়া দৌলতপুরে পদ্মা নদীতে অস্বাভাবিক পানি বৃদ্ধির ব্লকের বাঁধের উপর দিয়ে দক্ষিণ অঞ্চল প্লাবিত হওয়া আশঙ্কা

আছানুল হক, কুষ্টিয়া দৌলতপুরঃ

কুষ্টিয়া দৌলতপুরে পদ্মা নদীতে অস্বাভাবিক পানি বৃদ্ধির ফলে কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার চরাঞ্চলের বিপুলসংখ্যক মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছে।উপজেলার রামকৃষ্ণপুর ও  চিলমারী ইউনিয়নের অধিকাংশ  বাড়িতে পানি ঢুকেছে এবং ফিলিপনগর ইউনিয়নে গ্রাম রক্ষা বাধের মাত্র ৩ থেকে ৪ ইঞ্চি নিচে পানি। আর একটু পানি বৃদ্ধি পেলে দক্ষিণ অঞ্চল প্লাবিত হবে বলে আশঙ্কা করছে এলাকাবাসী । আর বাধের  দক্ষিণ অঞ্চল প্লাবিত হলে উপজেলার বেশ কিছু অঞ্চল প্লাবিত হবে।

 

এ বিষয়ে চরবাসী জানান, এ বছর  বন্যার পানি বৃদ্ধি পেয়েছে হঠাৎ করে। যার ফলে চর অঞ্চলের ফসল ধান পাট অধিকাংশ পানির নিচে তলিয়ে গেছে। তারা আর জানান, প্রতি বছব পানি বৃদ্ধি হয় ধিরে ধিরে ফলে আমরা ফসল ও বাড়ি ঘরের জিনিস পত্রর তুলে  অন্যত্র সরিয়ে নিতে পারি কিন্তু এবার তা না পারাতে  ব্যাপক ক্ষতি হচ্ছে ধান পাট সহ অন্যান্য ফসলের    পানির নিচে তলিয়ে গেছে বাড়ি ঘর সহ নিত্য ব্যবহার্য জিনিসপত্র ।

এ বিষয়ে ফিলিপনগর ইউনিয়ন  চেয়ারম্যান ও স্থানীয় নেতারা জানান,  যে ভাবে বন্যার পানি বৃদ্ধি পাচ্ছে তাতে  অতি তাড়াতাড়ি কর্তৃপক্ষ ব্যবস্থা না নিলে  বন্যা নিয়ন্ত্রণের বাহিরে চলে যাবে।

আর ফিলিপনগর ইউনিয়নে যে এলাকার রক্ষার্থে ব্লক দিয়ে যে শত কোটি টাকার  বাঁধ তৈরি করেছে সরকার   সেই বাঁধ ক্ষতিগ্রস্ত হবে। আর একটু পারি বৃদ্ধি পেলে বাঁধ পেরিয়ে দক্ষিণ অঞ্চল প্লাবিত হবে। তাই আমাদের দাবি অতি দ্রত কর্তৃপক্ষ ব্যবস্থা গ্রহন করবে।

এ ব্যাপারে দৌলতপুর উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা শারমিন আক্তার জানান, মঙ্গলবার সকালে চর এলাকার বিভিন্ন ইউনিয়ন এর বন্যার পানি ঢোকার খবর পেয়ে  উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তাসহ একটি টিম দ্রুত এলাকায় পাঠিয়ে সার্বিক পরিস্থিতি পর্যালোচনা করা হয়েছে  এবং উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে প্রয়োজনীয় সকল ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে ।

JN-24/2021  যমুনা নিউজ ২৪

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো সংবাদ
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি