শিরোনাম :
‘ভূঞাপুর রিপোর্টার্স ইউনিটি’র নতুন কমিটি আত্মপ্রকাশ! ভূঞাপুরে মালা হত্যায় জড়িতদের ফাঁসির দাবিতে মানববন্ধন ভূঞাপুরে ৮৭০ পিস ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক! ভূঞাপুরে মর্মান্তিক মটরসাইকেল দুর্ঘটনায় নিহত ১, আহত ৩ ভূঞাপুরে উপ-প্রকৌশলী মিরাজুলের বিরুদ্ধে অনিয়ম, দুর্নীতি ও ঘুষের অভিযোগ ভূঞাপুরে ঐতিহ্যবাহী বাউল গানের আসর অনুষ্ঠিত “যখন ইচ্ছে তখন অফিসে আসবো”-ভূঞাপুর খাদ্য নিয়ন্ত্রক কর্মকর্তা নদী ভাঙ্গনে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের উন্মুক্ত তালিকা করলেন চেয়ারম্যান দিদারুল আলম খান মাহবুব ভূঞাপুরে মতিন সরকারের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ ভূঞাপুরে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে বনিক সমিতির মিলাদ-দোয়া ও কাঙ্গালীভোজ!

ছাত্র আন্দোলনে উত্তাল রবিবা, সাময়িক নয় স্থায়ী বহিস্কার চায় শিক্ষিকার

  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ১ অক্টোবর, ২০২১
  • ১৬৫ দেখেছেন

মোঃ আমিরুল ইসলাম, সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধিঃ

কবিগুরু রবি ঠাকুরের স্মৃতিবিজড়িত শাহজাদপুরে প্রতিষ্ঠিত শাহজাদপুরে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় এর শিক্ষিকার স্থায়ী বহিষ্কারের দাবীতে শিক্ষার্থীদের অবস্থান ধর্মঘট, শিক্ষক-কর্মকর্তারা অবরুদ্ধ রয়েছে।

ছাত্র আন্দোলনে উত্তাল রবিবা, সাময়িক নয় স্থায়ী বহিস্কার চায় শিক্ষিকার।

১৪ জন শিক্ষার্থীর চুল কেটে দেওয়ার ঘটনায় রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলাদেশের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য ও বাংলাদেশ অধ্যয়ন বিভাগের চেয়ারম্যান ও সহকারী প্রক্টর ফারহানা ইয়াসমিন বাতেনকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৩০ সেপ্টেম্বর) রাত ৮টায় অনুষ্ঠিত বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৬তম সিন্ডিকেট সভায় এসব সিদ্ধান্ত নিয়ে সাংবাদিক ও শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে জানিয়ে দেয়া হয়। একই সঙ্গে অনির্দিষ্টকালের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক ও প্রশাসনিক কর্মকাণ্ড বন্ধ রাখার ঘোষণা দেয়া হয়েছে, পাশাপাশি স্থগিত করা হয়েছে সব পরীক্ষাও।

অন্যদিকে তদন্ত সংশ্লিষ্ট কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে বলেও সভায় সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। এদিকে অভিযুক্ত শিক্ষক ফারহানা ইয়াসমিন বাতেনকে সাময়িক বহিষ্কারের পর শিক্ষার্থীরা অনশনের মত কঠোর আন্দোলন থেকে সরে আসলেও স্থায়ী বহিষ্কারের দাবীতে অবস্থান ধর্মঘট করছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের সাথে।

সেইসাথে প্রশাসনিক ভবনে তালা দিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসির অতিরিক্ত দায়িত্বপ্রাপ্ত ট্রেজারার আব্দুল লতিফসহ শিক্ষক, কর্মচারিদের অবরুদ্ধ করে রেখেছেন শিক্ষার্থীরা।

রবিবার অর্থনীতি বিভাগের শিক্ষার্থী একেএম নাজমুল হাসান, রবীন্দ্র অধ্যয়ন বিভাগের শিক্ষার্থী বিভা, আবু জাফর এবং সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য বিভাগের শিক্ষার্থী শামীম হোসাইন, শোয়েব হাসান জানান, আমরা বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষক ফারহানা ইয়াসমিন বাতেনের স্থায়ী বহিষ্কার না হওয়া পর্যন্ত আমাদের এ আন্দোলন চলমান থাকবে।

এ বিষয়ে তদন্ত কমিটির প্রধান লাইলা ফেরদৌস হিমেলকে তদন্ত কমিটির কাজের অগ্রগতির বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন,”ছাত্ররা প্রশাসনিক ভবন অবরুদ্ধ করার কারণে আমরা তদন্তের কাজ দ্রুত সম্পন্ন করতে পারছিনা”।

উল্লেখ্য বিশ্ববিদ্যালয়ে অবস্থান রত অবস্থায় ক্লাশে ঢুকার পূর্ব মুহূর্তে শিক্ষিকা ফারহানা ইয়াসমিন বাতেনের হাতে কাচি রয়েছে এমন ভিডিও ফুটেজ ইতিমধ্যেই সাংবাদিকদের হাতে এসে পৌঁছেছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো সংবাদ
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি