শিরোনাম :
‘ভূঞাপুর রিপোর্টার্স ইউনিটি’র নতুন কমিটি আত্মপ্রকাশ! ভূঞাপুরে মালা হত্যায় জড়িতদের ফাঁসির দাবিতে মানববন্ধন ভূঞাপুরে ৮৭০ পিস ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক! ভূঞাপুরে মর্মান্তিক মটরসাইকেল দুর্ঘটনায় নিহত ১, আহত ৩ ভূঞাপুরে উপ-প্রকৌশলী মিরাজুলের বিরুদ্ধে অনিয়ম, দুর্নীতি ও ঘুষের অভিযোগ ভূঞাপুরে ঐতিহ্যবাহী বাউল গানের আসর অনুষ্ঠিত “যখন ইচ্ছে তখন অফিসে আসবো”-ভূঞাপুর খাদ্য নিয়ন্ত্রক কর্মকর্তা নদী ভাঙ্গনে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের উন্মুক্ত তালিকা করলেন চেয়ারম্যান দিদারুল আলম খান মাহবুব ভূঞাপুরে মতিন সরকারের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ ভূঞাপুরে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে বনিক সমিতির মিলাদ-দোয়া ও কাঙ্গালীভোজ!

বিজেএসকেএস সংগঠনের উদ্যোগে বঙ্গবন্ধুর ৪৬ তম শাহাদত বার্ষিকী উদযাপন

  • আপডেট টাইম : রবিবার, ১৫ আগস্ট, ২০২১
  • ২০৪ দেখেছেন

মোঃ ফরিদ খান, চট্টগ্রাম প্রতিনিধি:

বাঙ্গালীর গর্ব বাঙ্গালীর অহংকার জাতির জনক সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ পরিবারের সকল শহীদদের মাগফিরাত কামনা করে বাংলাদেশ জাতীয় সংবাদিক কল্যাণ সোসাইটি চট্টগ্রাম মহানগর কমিটির উদ্যোগে আলোচনা, মিলাদ ও দোয়ার মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন বিশিষ্ট সাংবাদিক মোহাম্মদ কায়ছার , সভা পরিচালনা করেন জাতীয় দৈনিক যায়যায় কাল পত্রিকার চট্টগ্রাম বিভাগীয় বিশেষ প্রতিনিধি মোঃ শফিকুল ইসলাম। শুরুতে স্বাগত বক্তব্য নিয়ে আসেন চট্টগ্রাম মহানগর কমিটির আহ্বায়ক, জাতীয় দৈনিক আলোকিত প্রতিদিন পত্রিকা চট্টগ্রাম ব্যুরো প্রধান মোঃ তরিকুল ইসলাম রানা।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ জাতীয় সংবাদিক কল্যাণ সোসাইটির কেন্দ্রীয় কমিটির সিনিয়র সহ-সভাপতি এম এ সবুর, প্রকৌশলী মোঃ বদরুজ্জামান কামাল, শাহজাদা মোহাম্মদ মঈনউদ্দীন, কেন্দ্রীয় কমিটির গণসংযোগ বিষয়ক সম্পাদক মোঃ নিজাম, তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক মোঃ সেলিম

প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, শেখ রাসেল স্মৃতি সংসদের চট্টগ্রাম বিভাগীয় সভাপতি সেলিম আসলাম ছায়েদ চৌধুরী সোহেল।
তিনি বলেন, আজ ১৫ আগস্ট, জাতীয় শোক দিবস। স্বাধীনতার স্থপতি, মুক্তিযুদ্ধের সর্বাধিনায়ক, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৬তম শাহাদাতবার্ষিকী।

১৯৭৫ সালের এই দিনে সংঘটিত হয়েছিল ইতিহাসের নৃশংস ও মর্মস্পর্শী রাজনৈতিক হত্যাকাণ্ড। এদিন ভোরে সেনাবাহিনীর কিছু সংখ্যক বিপথগামী সদস্য ধানমন্ডি ৩২ নম্বরের বাসভবনে বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যা করে। এ ঘটনার মধ্য দিয়ে বাঙালির ইতিহাসে সংযোজিত হয় এক কালিমালিপ্ত অধ্যায়।

ঘাতকরা সেদিন শুধু বঙ্গবন্ধুকেই হত্যা করেনি, তাদের হাতে একে একে প্রাণ হারিয়েছেন বঙ্গবন্ধুর সহধর্মিণী বঙ্গমাতা ফজিলাতুন নেছা মুজিব, বঙ্গবন্ধুর সন্তান শেখ কামাল, শেখ জামাল ও শিশু শেখ রাসেল, পুত্রবধূ সুলতানা কামাল ও রোজী জামাল। এছাড়া বঙ্গবন্ধুর ভাই শেখ নাসের, ভগ্নিপতি আবদুর রব সেরনিয়াবাত, আরিফ, বেবি ও সুকান্ত, আবদুল নাঈম খান রিন্টু, বঙ্গবন্ধুর ভাগনে যুবনেতা শেখ ফজলুল হক মণি এবং তার অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী আরজু মণিকেও হত্যা করা হয়। সেদিন বঙ্গবন্ধুকে বাঁচাতে ছুটে আসা কর্নেল জামিলও ঘাতকের বুলেটের আঘাতে প্রাণ হারান। তবে সেই সময় বিদেশে থাকায় প্রাণে বেঁচে যান বঙ্গবন্ধুর দুই কন্যা বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা।

আরোও উপস্থিত ছিলেন, জাতীয় দৈনিক স্বাধীন সংবাদ পত্রিকার চট্টগ্রাম বিভাগীয় ক্রাইম রিপোর্টার মোঃ জুবাইর, দৈনিক আলোকিত প্রতিদিন পত্রিকার রিপোর্টার সুমন সেন,মাসিক স্বপ্নের বাংলার সম্পাদক ও প্রকাশক ওসমান গণি, দৈনিক একুশে সংবাদ পত্রিকার স্টাফ রিপোর্টার মোঃ মঈন উদ্দিন , দৈনিক বায়েজিদ পত্রিকার রিপোর্টার আব্দুল কাদের , দৈনিক যমুনা নিউজ24″অনলাইন” এর রিপোর্টার মোঃ ফরিদ খান, দৈনিক যুগের বার্তা পত্রিকা রিপোর্টার মাসুম বাবুল , দৈনিক স্বপ্নের বাংলার স্টাফ রিপোর্টার মোঃ সাদ্দাম হোসাইন, রফিকুল ইসলাম , কেফায়েত উল্লাহ, তিপন জয় তিপুরা, মোরশেদ, হামিদুল ইসলাম, মোঃ সাইফুজ্জামান, কায়সার, মোঃ সাকিব, হাসান উল্লা, হাজরা আক্তার হেনা, ফারজানা আকতার, মাওলানা হাসান রেজা আবেদী, সোহেল ও মোঃ ফিরোজ উদ্দিন প্রমূখ।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো সংবাদ
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি